স্কিল ডেভেলপমেন্ট স্কলারশিপ

শুধুমাত্র আখাউড়া/কসবা এলাকার  ছাত্র ছাত্রী দের জন্য প্রযোজ্য 

(২০১৯ সাল থেকে ২০২৩ সাল পর্যন্ত, ৫ বছরের একটানা প্রোগ্রাম )​

২০২১ সালের আবেদনের সময়সীমা ১ ফেব্রুয়ারী ১ থেকে জুন ১,  ২০২১  
২০২০ সালের আবেদনের সময়সীমা ১ ফেব্রুয়ারী ১ থেকে জুন ১,  ২০২০  - (১৭ জন কে বৃত্তি প্রদান করা হয়েছে )
২০১৯ সালের আবেদনের সময়সীমা ১ ফেব্রুয়ারী ১ থেকে জুন ১, ২০১৯  - (৮ জন কে বৃত্তি প্রদান করা হয়েছে )

২০২১ সালের আবেদনকারীদের জন্য 

  •  ২০২১ সাল  থেকে কলেজ লেভেল এর নিচের কাউকে বৃত্তি প্রদান করা হবেনা

  • বৃত্তি প্রার্থী এক পৃষ্ঠার মধ্যে বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবায় অথবা এক্সট্রাকারিকুলার কাজে অংশগ্রহণের বর্ণনা এবং ওই কাজে মোট কত ঘন্টা সময় দিয়েছে সেটি লিখে আবেদনপত্রের সাথে দিতে হবে.. আবেদনের পূর্ববর্তী বছরে ন্যূনতম ২৫ ঘন্টার স্বেচ্ছাসেবা অথবা অন্য যে কোনো কাজ বা এক্সট্রাকারিকুলার কাজের  প্রমাণযোগ্য অভিজ্ঞতা ছাড়া কাউকে বৃত্তি দেয়া হবেনা।.

  •  **২০১৯ এবং ২০২০ সালের সফল বৃত্তিপ্রাপ্তরা আবেদন করিতে পারিবেন না..

  • বৃত্তি আবেদনপত্রের সাথে  অভিভাবকের অনুমতিপত্র, বায়োডাটার মধ্যে পড়াশুনা এবং অন্যান্য কার্যক্রমের বর্ণনা থাকা বাধ্যতামূলক .  স্থানীয় কোনো মুরুব্বীর/শিক্ষক বা স্থানীয় সরকারি বা বেসরকারি পদস্থ কোনো ব্যক্তির রেকমেন্ডেশন থাকলে তা আবেদন পত্রের সাথে আপলোড করা যেতে পারে।. সকল আবেদন অনলাইনে  নিচে দেয়া লিংক এ গিয়ে করতে হবে। . ২০২১ আগস্ট মাসে শুধুমাত্র সফল বৃত্তিপ্রাপ্তদের সাথে যোগাযোগ করা হবে. সকল আবেদনকারীর তথ্য ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে গোপন রাখা হবে..

আখাউড়া কসবা এলাকার এলাকায় ২০২০-২০২১

সালের বৃত্তি প্রাপ্ত দের  পরিসংখ্যান 

আলহামদুলিল্লাহ , ২০২০ সালে করোনার মধ্যেও এলাকায় একক ভাবে সর্বনিম্ম ২৫০০ টাকা থেকে সর্বোচ্চ ৫০,০০০ টাকার পর্যন্ত স্কিল বৃত্তি দেয়া হয়েছে যা আখাউড়া কসবা এই এলাকার জন্য রেকর্ড।.

আখাউড়া কসবা এলাকার এলাকায় ২০১৯-২০২০ সালের বৃত্তি প্রাপ্ত দের  পরিসংখ্যান 

২০১৯-২০২০ সালের  কম্পিউটার শিক্ষা বৃত্তি  

২০১৯ সালের বৃত্তির ফলাফল 

কাদের জন্য প্রযোজ্য বা কারা আবেদন করতে পারবে?

 

স্কিল ডেভেলপমেন্ট বৃত্তি :

  • কলেজ বা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ুয়া তৃতীয়  বর্ষ বা এর উপরের লেভেলের ছাত্র/ছাত্রী,

  • গত চার বছরের মধ্যে কলেজ বা বিশ্ববিদ্যালয় শেষ করা বর্তমানে ফুলটাইম চাকরী করছে না এমন ছাত্র/ছাত্রী,

  • বর্তমানে বেকার তরুন/তরুনী


উক্ত স্কলারশিপের উদ্যেশ্য কি?

  • নতুন স্কিল বা প্রশিক্ষনের/ট্রেইনিং এর মাধ্যমে আবেদন কারির চাকরী বা কর্মক্ষেত্রে উন্নয়ন বা স্ব-উন্নয়ন/ক্যারিয়ার তৈরীতে সহায়তা করা

  • আমরা আশা করি বৃত্তি/স্কলারশিপ প্রাপ্ত তরুন তরুনীরা ভবিস্যতে নিজেরা মনিয়ন্দ চৌধুরী বাড়ি এবং আশে পাশের এলাকায়  একই ধরনের কাজের পুনরাবৃত্তি করবে অথবা মমিনুল হক চৌধুরী ফাউন্ডেশনের কাজে সহায়তা করবে.

 

উক্ত স্কলারশিপে আবেদনের শর্তসমূহ কি কি?

(শর্তসমূহ, নিচের শর্তগুলি মেনে আবেদন করতে হবে)

 

  • বৃত্তি আবেদনের অভিভাবকের অনুমতি পত্র এবং আবেদন কারির বায়োডাটা আবেদনের সাথে আপলোড করতে হবে

  • মমিনুল হক চৌধুরী ফাউন্ডেশন এলাকায় ভবিস্যতের মানুষ তৈরীর বিনিয়োগ হিসাবে উক্ত বৃত্তি চালু করেছে,  বৃত্তি প্রাপ্তরা ভবিস্যতে নিজের সামর্থ অনুযায়ী মমিনুল হক চৌধুরী ফাউন্ডেশনের এই ধরনের কাজে অথবা স্হানীয় এলাকায় সমধরনের কাজের পুনরাবৃত্তি করার চেস্টা করবে শুধুমাত্র এরুপ মনোভাবাপন্ন আবেদন কারীরাই আবেদন করার বলা হচ্ছে.. যেহেতু আমাদের বাজেট সিমিত , যারা ভবিস্যতে অনুরুপ কাজে অংশগ্রহন বা পুনরাবৃত্তি করার অভিপ্রায় নেই , তাদের উক্ত বৃত্তি তে আবেদন না করার জন্য বলা হচ্ছে..

 

কোথায় , কিভাবে আবেদন করতে হবে?

 

অনলাইনে নিচের লিন্কে গিয়ে আবেদন করতে হবে, আবেদনের সাথে অবশ্যই, বায়োডাটা এবং অভিভাবকের অনুমতি পত্র আপলোড করতে হবে, বায়োডাটায় মনিয়ন্দ চৌধুরী বাড়ি তরুন সন্ঘের মাসিক চাদা দানকারি সদস্য,  খেলাধুলা, স্বেচ্ছাসেবা, এক্সট্রা কারিকুলার বা পড়াশোনার বাইরে বিভিন্ন ধরনের কর্মকান্ডে যুক্ত থাকলে সন্ক্ষিপ্ত বর্ননা দিতে হবে

 

আবেদনে কারা প্রাধান্য পাবে?

 

আখাউড়া কসবা এলাকায় স্থায়ীভাবে বসবাসকারী ছাত্র ছাত্রী /বেকার তরুণ তরুণী , মনিয়ন্দ চৌধুরী বাড়ি তরুন সন্ঘের মাসিক চাদা দানকারি সদস্যবৃন্দ,  খেলাধুলা, স্বেচ্ছাসেবা, এক্সট্রা কারিকুলার বা পড়াশোনার বাইরে বিভিন্ন ধরনের কর্মকান্ডে যারা যুক্ত তারা আবেদন পর্যালোচনায় প্রাধান্য পাবে, আপনার বায়োডাটায় উক্ত তথ্যাবলি উল্লেখ করুন.

 

স্কলারশিপের কয়েকটি খাতের উদাহরন 

  • ৩ থেকে ৬ মাসের সল্পমেয়াদি কম্পিউটার কোর্স

  • ড্রাইভিং লাইসেন্স শিক্ষা

  • বিদেশ যাওয়ার জন্য তৈরি হওয়ার জন্য TOEFL, IELTS, SPOKEN ENGLISH কোচিং বা পরীক্ষার রেজিস্ট্রেশনের খরচ

  • যে কোন ধরনের কর্মমুখি শিক্ষা

  • পাসপোর্ট তৈরী

  • বিদেশ যাওয়ার জন্য কোন বিশেষ ভাষা শিক্ষা কোর্স বা ট্রেইনিং

  • খামার বা হাতে কলমে কাজের প্রশিক্ষণ

অন্যান্য:

  • কোনধরনের ব্যবসা শুরুর ছোট ধরনের পুজি, বা ব্যবসা সহায়তা পুজি (এক্ষেত্রে ৬ মাসের মধ্য টাকা ফেরত দিতে হবে, এইধরনের লোনের ক্ষেত্রে মনিয়ন্দ চৌধুরী বাড়ি তরুন সন্ঘের মেম্বারদের কমিটির ভোটের মাধ্যমে যোগ্যতা নির্ধারন করা হবে)

  • বিদেশে যাওয়ার টিকেট ক্রয় সহায়তা লোন (এক্ষেত্রে ৬ মাসের মধ্য টাকা ফেরত দিতে হবে, এইধরনের লোনের ক্ষেত্রে মনিয়ন্দ চৌধুরী বাড়ি তরুন সন্ঘের মেম্বারদের কমিটির ভোটের মাধ্যমে যোগ্যতা নির্ধারন করা হবে, এবং টাকা সম্পূর্ণ সুদ বিহীন ,  সম্পূর্ণ টাকা বিকাশ খরচ+১% প্রসেসিং ফী সহ  এককালিন  ফেরত দিতে হবে এবং  ঋণ গ্রহীতা ভবিষ্যতে অন্য দুইজনকে  একই টাকার পরিমান সুদমুক্ত ঋণ দিয়ে সহায়তা করবে এই মর্মে মৌখিক অঙ্গীকার করতে হবে.. মনিয়ন্দ চৌধুরী বাড়ি তরুণ সংঘের কার্যকরী সদস্য দের  মধ্যে থেকে ন্যূনতম  ৩ জন এর স্বাক্ষরে ঋণ গ্রহীতা কে অনুমোদন করিবেন। সর্বোচ্চ ঋণের পরিমান ২৫ হাজার টাকা এবং বাজেট বা ফান্ড থাকা সাপেক্ষে নির্ধারণ হবে।  
    )

সকল তথ্য যাচাই করা হবে, বৃত্তির টাকা মনিয়ন্দ চৌধুরী বাড়ি তরুন সন্ঘের মাধ্যমে দেয়া হবে

©2018 by MHCF. Proudly created with Wix.com